কম দামে ভালো গেমিং ফোন । বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২

কম দামে ভালো গেমিং ফোন । বেস্ট গেমিং ফোন

5

আপনি কি কম দামে ভালো গেমিং ফোন কিনতে চান? তাহলে ধারাবাহিক ভাবে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন। আর জেনে নিন বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ সালের কোন ব্র্যান্ড টি। যে ব্র্যান্ড টি আপনি ১০-১৫ হাজার টাকার মধ্যে কম দামে গেমিং ফোন পাবেন। কেননা, বর্তমানে বাংলাদেশে গেমারদের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। কিন্তু তারা বেস্ট গেমিং ফোন ব্যবহার করতে পারছে না। তাদের জন্য আজ আমি ভালো গেমিং ফোন এর অফিসিয়াল তালিকা নিয়ে এসেছি।

যে ফোন গুলোতে আপনি খুব সহজেই সব ধরনের গেম মিডিয়াম টু হাই সেটিং এ খেলতে পারবেন। আর গেমের পাশাপাশি মোবাইলের সব রকমের কাজ ভালোভাবে করতে পারবেন। আর এই ফোন গুলো থেকে আপনার গেমিং এক্সপেরিয়েন্স হবে অসাধারন। চলুন তাহলে আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক, আমাদের আজকের আলোচনার মূল বিষয় কম দামে ভালো গেমিং ফোন এবং বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ সালের সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

কম দামে বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২

গেম খেলতে কার না ভালো লাগে। প্রায় মানুষ আজ যে কোন গেমের প্রতি আসক্ত। কিন্তু তারা গেম খেলার জন্য কম দামে ভালো গেমিং ফোন ব্যবহার করতে পারছেনা। তবে সব কোম্পানীর ফোন গেমিং ফোন। কিন্তু সব গেমিং ফোনের পারফরম্যান্স এক না। আপনি যে কোন ফোন দিয়ে গেম খেলতে পারবেন।

তবে এক্ষেত্রে আপনাকে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। যেমন, স্টোরেজ কম, স্পিড কম, চার্জ কমে যাওয়া এমন কি হ্যাং হতে পারে। তাই আজ আমি আপনাদের জানাতে এসেছি, কম দামে ভালো গেমিং ফোন কোন গুলো সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নিয়ে। নিচে বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ সালের সেরা ফোন গুলোর তথ্য পয়েন্ট আকারে তুলে ধরা হলো।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ । Samsung galaxy m 02s

আপনি যদি কম দামে ভালো গেমিং ফোন খুজে থাকেন, আর আপনার পছন্দের ব্র‍্যান্ড যদি হয় স্যামসাং, তাহলে আমি বলবো আপনার জন্য রয়েছে স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস ফোনটি। মাত্র ১২ হাজার টাকায় বেস্ট গেমিং ফোন স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস এ ব্যবহার করা হয়েছে শক্তিশালী প্রসেসর।

তাছাড়া ফোনটির ডিসপ্লে খুবই আকর্ষনীয়। দাম অনুযায়ী ফোনটিতে ব্যবহৃত র‍্যাম ও স্টোরেজ যথেষ্ট। এছাড়া ফোনটির ব্যাটারি ব্যাকআপ আপনাকে দিবে পূর্ণ নিশ্চয়তা। এই স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস ফোনটিতে মানানসই ক্যামেরা অফার করা হয়েছে। ফোনটিতে থাকছে ত্রিপল ক্যামেরা সেটাপ আছে সেল্ফি ক্যামেরা।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এম০২এস বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর স্পেসিফিকেশন-

ডিসপ্লে  ৬.৫ইঞ্চি এইচডি+
প্রসেসর  কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৫০
র‍্যাম  ৪জিবি
স্টোরেজ  ৬৪জিবি
ব্যাক ক্যামেরা  ১২মেগাপিক্সেল থ্রিপল ক্যামেরা
ফ্রন্ট ক্যামেরা  ৫মেগাপিক্সেল সেল্ফি ক্যামেরা
ব্যাটারি  ৫০০০মিলিএম্প
দাম মাত্র  ১২,২৯৯ টাকা

রিয়েলমি সি১৫ কোয়ালকম এডিশন বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ । Realme c15

আপনি কি অনেক সময় ধরে গেম খেলার জন্য বেস্ট গেমিং ফোন খুঁজছেন? আপনার উত্তর যদি হ্যা হয়, তাহলে আপনার জন্য রয়েছে রিয়েলমি সি১৫ কোয়ালকম এডিশন ফোনটি। রিয়েলমি সি১৫ কোয়ালকম এডিশন ফোনটির প্রত্যেকটি বৈশিষ্ট্য গেমসের জন্য খুবই পারফেক্ট।

কারন এটিতে একইসাথে রয়েছে শক্তিশালী কোয়ালকম স্ম্যাপড্রাগন ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপ এবং ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। যা সত্যিই অসাধারণ। তাছাড়া রিয়েলমি সি১৫ এ থাকছে যথেষ্ট র‍্যাম ও ইন্টারনাল স্টোরেজ, যা দাম অনুযায়ী পারফেক্ট। ফোনটির ক্যামেরাতেও নেই কোন কমতি। কারন ক্যামেরাতে থাকছে চাহিদা অনুযায়ী আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা। আর সেল্ফি ক্যামেরা তো রয়েছেই।

রিয়েলমি সি১৫ কোয়ালকম এডিশন বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর স্পেসিফিকেশন-

ডিসপ্লে  ৬.৫ইঞ্চি
প্রসেসর  কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৬০
র‍্যাম  ৪জিবি
স্টোরেজ  ৬৪জিবি
ব্যাক ক্যামেরা ১৩মেগাপিক্সেল + ৮মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড
ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি  ৬০০০মিলিএম্প
দাম মাত্র  ১২,৯৯০ টাকা

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ । Tecno spark7 pro

আসলে টেকনো মানেই কম দামে ভালো গেমিং ফোন। অনেক দিন থেকেই বাজেটের মধ্যে গেমারদের সপ্ন পূরন করে আসছে টেকনো ব্র্যান্ড। সেই ধারাবাহিকতায় টেকনো বাজারে এনেছে টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো। তারা এই ফোনটি তৈরি করেছে দুই শ্রেনীয় ব্যবহার কারীদের উদ্দ্যেশ্যে করে। কারন এটিতে থাকা মিডিয়াটেক এর হেলিও জি৮০ প্রসেসর গেমিং এর জন্য যেমন ভালো, তেমনি সাধারণ মানুষের ব্যবহারের জন্যও অসাধারণ। কারন মাত্র ১৩ হাজার টাকার মধ্যে সপ্ন পূরন করছে টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো।

টেকনো স্পার্ক ৭ প্রো বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর স্পেসিফিকেশন-

ডিসপ্লে ৬.৬ইঞ্চি পাঞ্চ-হোল ডিসপ্লে + ৯০হার্জ রিফ্রেশ রেট
প্রসেসর মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০
র‍্যাম  ৪জিবি
স্টোরেজ  ৬৪জিবি
ব্যাক ক্যামেরা ৪৮মেগাপিক্সেলের ট্রিপল ক্যামেরা
ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি  ৫০০০মিলিএম্প
দাম মাত্র  ১৩,৪৯০ টাকা

ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ । Walton rx7 mini

আপনি যদি ১০হাজার টাকার ভালো গেমিং ফোন খুঁজে থাকেন, তাহলে আমি বলবো ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি ফোনটি হতে পারে আপনার সেরা পছন্দ। এই ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি ফোনটিতে রয়েছে মিডিয়াটেক এর শক্তিশালী হেলিও প্রসেসর। রয়েছে যথেষ্ট র‍্যাম ও স্টোরেজ। যা গেম খেলার জন্য খুবই ভালো মানের। ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি তে থাকছে ৩০০০মিলিএম্প ব্যাটারি, রয়েছে ডুয়াল ক্যামেরা ও সেল্ফি ক্যামেরা। ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি ফোনটির পেছনে রয়েছে ফিংগারপ্রিন্ট সেন্সর।

ওয়ালটন আরএক্স৭ মিনি বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর স্পেসিফিকেশন-

ডিসপ্লে ৬.১ইঞ্চি এইচডি+
প্রসেসর মিডিয়াটেক হেলিও পি৬০
র‍্যাম  ৩জিবি
স্টোরেজ ৩২জিবি
ব্যাক ক্যামেরা ১৩মেগাপিক্সেল এর ডুয়াল ক্যামেরা
ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮মেগাপিক্সেল সেল্ফি ক্যামেরা
ব্যাটারি  ৩০০০মিলিএম্প
দাম মাত্র ৯,৪৯৯ টাকা

রিয়েলমি নারজো ২০ বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ । Realme narzo 20

রিয়েলমি নারজো ৩০এ এবং রিয়েলমি নারজো ২০ এই ফোন দুইটি বলতে গেলে প্রায়ই একই। শুধু ফোন দুইটির মধ্যে প্রধান পার্থক্য হচ্ছে ক্যামেরাতে। এছাড়া বাকি সব ক্ষেত্রে ঠিক রয়েছে। এই ফোন টি গেমারদের জন্য খুবই ভালো। যারা কম দামে ভালো ফোন কিনতে চাইছেন। আমি ব্যাক্তিগত ভাবে বলবো, ফোনটি খুব ভালো। যার চার্জ ব্যাকআপ দেয় অনেক সময় ধরে। আপনি গেম খেলবেন কিন্তু চার্জ শেষ করতে পারবেন না। এটিই বাজারে বর্তমানে ভালো গেমিং ফোন।

রিয়েলমি নারজো ২০ বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর স্পেসিফিকেশন-

ডিসপ্লে ৬.৫ইঞ্চি ফুল এইচডি
প্রসেসর  মিডিয়াটেক হেলিও জি৮৫
র‍্যাম ৪জিবি
স্টোরেজ ৬৪জিবি
ব্যাক ক্যামেরা  ৪৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা + ৮মেগাপিক্সেলের আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা
ফ্রন্ট ক্যামেরা  ৮মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি ৬০০০মিলিএম্প
দাম মাত্র ১৩,৯৯০ টাকা

ওয়ান প্লাস ৮ প্রো বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ । One plus 8 pro

গেমিং মোবাইল এর কথা যখন আসছে তখন ওয়ান প্লাস ৮ প্রো মোবাইলের কথা না বললে কি হয়। ওয়ান প্লাস এর মোবাইল গুলোকে কখনো বাজেট মোবাইলের লিস্টে রাখা হয়না। এগুলো premium smartphones এর cattegory তে ধরা হয়। যত বড় মোবাইলের স্ক্রিন সাইজ ততটাই গেমিং এর মজা বেশি।

এই ফোনের স্কিন অনেক বড় থাকায় গেম খেলতে মনে প্রশান্তি মেলে। তাই আমি বলবো এই ফোনটি আপনি ক্রয় করতে পারেন। ওয়ান প্লাস ৮ প্রো এর Operating system এর কথা বললে এখানে Android 10 থাকবে যেটা ভবিষ্যতে Android 11 এ আপগ্রেড করতে পারবেন।

ওয়ান প্লাস ৮ প্রো বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর স্পেসিফিকেশন-

ডিসপ্লে ৬.৮ ইঞ্চি ফুল এইচডি
প্রসেসর ৮৬৫ কোয়ালকম স্নাপড্রাগন
র‍্যাম ১২ জিবি
স্টোরেজ ১২৮জিবি
ব্যাক ক্যামেরা ৪মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা, ৪৮মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা ও ৫মেগাপিক্সেল কালার ফিল্টার
ফ্রন্ট ক্যামেরা ১৬ মেগাপিক্সেল
ব্যাটারি ৪৫১০মিলিএম্প
দাম মাত্র  ১৩,৯৯০ টাকা

 

বন্ধুরা, ভালো গেমিং ফোন গুলো সাধরনত দাম একটু বেশিই হয়। তবে কম দামে ভালো গেমিং ফোন পাওয়া যায় না তা নয়। কম দামে গেমিং ফোন পাওয়া যায় কিন্তু সেটির পারফরম্যান্স, ক্যাপাসিটি এবং তাড়াতাড়ি গরম হতে পারে। তাই আপনি যদি একজন সত্যিকারের গেমিং পারফরমার হয়ে থাকেন। তাহলে উপরে উল্লেখিত ৬ টি বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর যে কোন একটি কিনতে পারেন। আর কোন ফোন আপনার কাছে ভালো লেগেছে তা কমেন্ট করে জানাবেন। ধন্যবাদ

Leave A Reply

Your email address will not be published.